রাজ্যের স্টাফ সিলেকশন কমিশনের পুনর্গঠন থমকে গেল, তাহলে গ্রূপ-ডি নিয়োগ কি PSC- র হাতে ?

বিধানসভায় বিরোধীদের প্রবল আপত্তিতে থমকে গেল স্টাফ সিলেকশন কমিশন ফিরিয়ে আনার বিল। তাহলে কি গ্রূপ-ডি নিয়োগ প্রক্রিয়া সেই পিএসসির হাতে থাকল? বিধানসভা সূত্রে খবর, স্টাফ সিলেকশন কমিশন ফিরিয়ে আনার জন্য রাজ্য সরকারের তরফে বিধানসভায় যে বিল পেশ করা হয়েছিল তা আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে। West Bengal Staff Selection Commission
বিলে বলা হয়েছে, কমিশন তৈরীর ক্ষেত্রে সরকার কোন আর্থিক দায়ভার নেবে না। এই নিয়ে প্রশ্ন তোলেন বিরোধীরা। এরপর অধ্যক্ষের অনুরোধে পরিষদীয় দলনেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, “বিষয়টি আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা উচিত”। জটিলতা কাটিয়ে আগামী ৩ সেপ্টেম্বর আলোচনা করা হবে বলেও জানান অধ্যক্ষ।
পরিকাঠামোগত ত্রূটি একাধিক দুর্নীতির কারণে 2017 সালে রাজ্যের স্টাফ সিলেকশন কমিশন তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য সরকার। এবার সেই পুরনো স্টাফ সিলেকশন কমিশন পুনর্গঠন করতে চলেছে রাজ্য সরকার। গত 10 জুলাই বিধানসভায় দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন, দ্রুত 33 হাজার শূন্যপদে কর্মী নিয়োগ করা হবে। এই শূন্য পদ পূরণ করতে রাজ্য সরকারের বাড়তি 500 কোটি টাকা খরচ হবে বলে জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যে নতুন করে স্টাফ সিলেকশন কমিশন গঠন হওয়ার পর এই 33 হাজার শূন্য পদ খুব শীঘ্রই পূরণ করা হতে পারে।
 

আরও পড়ুন -  সরকারি চাকরিতে ১০ শতাংশ সংরক্ষণের ঘোষণা রাজ্যের (10% Reservation in West Bengal)