স্টাফ সিলেকশন কমিশনের মাধ্যমে কয়েক হাজার কর্মী নিয়োগ

স্টাফ সিলেকশন কমিশনের মাধ্যমে কয়েক হাজার কর্মী নিয়োগ। নিয়োগ করা হবে কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন শহরে একাধিক সেন্টার রয়েছে। Combined Higher Secondary Level (10+2) Examination 2019 (CHSL).
পদের নাম- পোস্টাল অ্যাসিস্ট্যান্ট/ সর্টিং অ্যাসিস্ট্যান্ট, লোয়ার ডিভিশন ক্লার্ক/ জুনিয়র সেক্রেটারিয়েট অ্যাসিস্ট্যান্ট, ডাটা এন্ট্রি অপারেটর  ডাটা এন্ট্রি অপারেটর (Grade- A)

শূন্যপদ- মোট কত শূন্যপদে নিয়োগ করা হবে তা এখনো জানানো হয়নি। শুধু শূন্যপদের জন্য আলাদা একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করবে স্টাফ সিলেকশন কমিশন। সূত্রের খবর মোট শূন্যপদ থাকবে প্রায় 5 হাজার।

শিক্ষাগত যোগ্যতা- 
পোস্টাল অ্যাসিস্ট্যান্ট/ সর্টিং অ্যাসিস্ট্যান্ট, লোয়ার ডিভিশন ক্লার্ক/ জুনিয়ার সেক্রেটারিয়েট অ্যাসিস্ট্যান্ট এবং ডাটা এন্ট্রি অপারেটর পদের জন্য উচ্চমাধ্যমিক পাশ
ডাটা এন্ট্রি অপারেটর (Grade- A) পদের জন্য সায়েন্সে উচ্চমাধ্যমিক পাশ এবং উচ্চমাধ্যমিকে অঙ্ক বিষয়টি থাকতে হবে।
বয়সসীমা- 18 থেকে 27, বয়স হিসাব করবেন ১লা জানুয়ারি ২০২০ তারিখের হিসাবে। সংরক্ষিত শ্রেণীর প্রার্থীরা সরকারি নিয়ম অনুযায়ী বয়সে ছাড় পাবেন।
আবেদন ফী- আবেদন ফী দিতে হবে 100 টাকা। মহিলা, SC, ST, PWD, Ex-Servicemen প্রার্থীদের কোনো আবেদন ফী দিতে হবে না।
আবেদন পদ্ধতি- আবেদন করতে হবে অনলাইনে। একটি বৈধ মোবাইল নম্বর এবং মেইল আইডি থাকতে হবে। স্টাফ সিলেকশন কমিশন এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রথমে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। যারা আগে রেজিস্ট্রেশন করে রেখেছেন তাদের দ্বিতীয়বার করতে হবে না। সরাসরি আবেদন করতে পারবেন।
আবেদনের শেষ তারিখ- 10 জানুয়ারি 2020।

কম্পিউটার বেস্ট এক্সামিনেশন (Tier- 1) হবে 16 থেকে 27 মার্চ 2020. Tier- 1 পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেই মেন পরীক্ষা দেওয়া যাবে। মেন পরীক্ষা 28 জুন 2020। 

Tier- 1 পরীক্ষা হবে চারটি অংশে। ইংরেজি, জেনারেল ইন্টেলিজেন্স, কোয়ান্টিটেটিভ অ্যাপটিটিউড এবং জেনারেল এওয়ারনেস। প্রতিটি বিভাগে 25 টি করে অবজেক্টিভ টাইপ প্রশ্ন থাকবে। প্রতিটি প্রশ্নের মান 2। অর্থাৎ প্রতিটি বিভাগে মোট নম্বর (25*2)= 50। চারটি বিভাগ মিলিয়ে মোট (50*4)= 200 মার্কের পরীক্ষা হবে। সময় থাকবে 1 ঘন্টা। নেগেটিভ মার্কিং রয়েছে।

Download official notification-

Click here to apply online-