মাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষা হবে, নিজের স্কুলে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষাথীদের

মাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষা হবে

ইতিমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছে আগামী বছরের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার রুটিন। তা আমরা আগেই ExamBangla.com -এর পাতায় আগেই প্রকাশ করেছি। পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ হয়েও চিন্তা যেন পিছু ছাড়ছে না পড়ুয়া তথা অভিভাবকদের। গোটা রাজ্য জুড়ে অভিভাবকদের মনে একটাই প্রশ্ন, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের টেস্ট পরীক্ষা হবে কিনা? নিজের স্কুলেই পরীক্ষা হবে? নাকি অন্য স্কুলের সেন্টারে পরীক্ষা সংঘটিত হবে?

এদিন পয়লা নভেম্বর মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছেন, আগের নিয়মেই সংঘটিত হবে ২০২২ সালের মাধ্যমিক পরীক্ষা। অর্থাৎ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের নিজের স্কুলে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ থাকছে না, পরীক্ষা দিতে হবে নির্ধারিত সেন্টারে। নিজের স্কুলে পরীক্ষা না হওয়ার কারণ হিসাবে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি জানান, গোটা রাজ্যে মোট ৯ হাজার ৯৯১ টি স্কুলের পড়ুয়ারা মাধ্যমিক পরীক্ষা দেয়, তাই একসাথে এতগুলো স্কুলে পরীক্ষা আয়োজন করা সম্ভব নয়। ২০২০ সালে রাজ্যের মোট ২ হাজার ৮৩৯ টি কেন্দ্রে পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল। যেহেতু করোনার প্রকোপ এখনও নির্মূল হয়নি তাই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখে পরীক্ষার কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। কালীপুজো, ভাইফোঁটা, ছট পুজোর ছুটি কাটলেই মাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষা হবে নিজেদের স্কুলেই।

আরও পড়ুনঃ
মাধ্যমিক রুটিন ২০২২
উচ্চ মাধ্যমিক রুটিন ২০২২

অন্যদিকে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি সঞ্জীব ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, ২০২২ সালের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা আগের নিয়মে সংঘটিত হচ্ছে না। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা নিজেদের স্কুলে পরীক্ষা দিতে পারবেন। অর্থাৎ তাদের হোম সেন্টার পরীক্ষা সংঘটিত হবে। এবার প্রশ্ন হলো উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের টেস্ট পরীক্ষা হবে কি না?
উচ্চমাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে সঞ্জীব বাবু জানান, উচ্চমাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষা হবে কিনা তা ঠিক করবে সেই স্কুলের প্রধান শিক্ষকেরাই। তারা যদি মনে করেন যে উচ্চ মাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষা একান্ত জরুরী তাহলে তারা টেস্ট পরীক্ষা নিতে পারেন। সংসদ সভাপতির এই ঘোষণায় উঠেছে একাধিক প্রশ্ন।

টেস্ট পরীক্ষা নিয়ে সংসদের নির্দিষ্ট কোনো নির্দেশ না থাকায় কোনো কোনো স্কুল টেস্ট পরীক্ষা নেবে, আবার কোনো কোনো স্কুল টেস্ট পরীক্ষা নেবে না। বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষকরা জানিয়েছেন, যদি কোনো স্কুল উচ্চমাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষা না নেয়, কিন্তু পাশের কোনো স্কুল যদি টেস্ট পরীক্ষা নেয় সেক্ষেত্রে অভিভাবকদের তরফ থেকে স্কুলের ওপর চাপ আসতে পারে পরীক্ষা না নেওয়ার জন্য। শিক্ষা সংসদের এই নির্দেশে ছাত্র- ছাত্রী এবং অভিভাবকরা অহেতুক ভয়ের মধ্যে স্কুলের নির্দেশের দিকে তাকিয়ে রয়েছেন। অভিভাবকদের অনুরোধ, উচ্চ মাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষা হবে কিনা তা নিয়ে যেন একটি নির্দিষ্ট গাইডলাইন প্রকাশ করে সংসদ।

আরও পড়ুনঃ
মাধ্যমিক পরীক্ষার নতুন সিলেবাস
উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার নতুন সিলেবাস