পূজোর পরেই ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু

পূজোর পরেই ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ

রাজ্যে পূজোর পরেই ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ করতে চলেছে রাজ্য সরকার। জানিয়ে খুশি চাকরি প্রার্থীরা। প্রায় ছয় বছরের পর এই নিয়োগ, রাজ্যের বেকারদের অনেকটা আশার আলো দেখাবে বলে ধারণা শিক্ষামহলের। মঙ্গলবার বিধানসভা অধিবেশন এমনটাই জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। রাজ্যের নতুন করে নিয়োগ পদ্ধতি তৈরি হয়েছে। আদালতের নির্দেশ মত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। কোন কোন বিভাগে কত শিক্ষক নিয়োগ করা হবে তার সমীক্ষা চালানো হবে বলে জানান শিক্ষা মন্ত্রী।

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলা নিয়ে আদালতের নির্দেশে প্রায় ১৮৭ জনকে প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি দিতে চলেছে রাজ্য সরকার। সোমবার ওই ১৮৭ জন প্রার্থীদের ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশন ও ভাইভা হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদে। পূজোর আগেই নিয়োগপত্র দেওয়া হবে সফল প্রার্থীদের।

আরও পড়ুনঃ শুরু হলো নবম- দশম শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া

সেই সঙ্গে রাজ্যে নতুন নিয়োগের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। পুজোর পরে প্রাথমিকে ২৫ হাজার শূন্যপদ, উচ্চ প্রাথমিকে প্রায় ১৪ হাজারের বেশি শূন্যপদ। আদালতে কোন সমস্যার সম্মুখীন না হলে এই নিয়োগ গুলোর ক্ষেত্রে কোন বাধা থাকবে না খুব শীঘ্রই নিয়োগ সম্পূর্ণ হবে। পরে বাকি মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও প্রধান শিক্ষক স্তরে নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে ভাবছে রাজ্য সরকার। মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগের আগেই প্রধান শিক্ষক নিয়োগ। প্রধান শিক্ষক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক এই সমস্ত স্তরের শূন্যপদ মিলিত হলে রাজ্যে নতুন করে ৫৫ হাজারের কাছাকাছি শিক্ষক নিয়োগ।