দমকল বিভাগে নিয়োগে দুর্নীতি, স্থগিতাদেশ দিলো কলকাতা হাইকোর্ট

দমকল বিভাগে নিয়োগে দুর্নীতি

রাজ্যের এক গুরুত্বপূর্ণ নিয়োগে আবারও অনিয়মের অভিযোগ উঠলো। ব্যাপারটা হাইকোর্টে উঠেছে। তাই, প্রায় দেড় হাজার পদে নিয়োগের উপর স্থগিতাদেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। দমকল বিভাগে প্রায় দেড় হাজার পদে অপারেটর নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল রাজ্য সরকার। ২০১৮ সালে লেখা পরীক্ষা হয়। এই নিয়োগের ক্ষেত্রে দুই তিনটি বিষয়ে চাকরী প্রার্থীদের মধ্যে ক্ষোভ রয়েছে, তাই বিষয়টি নিয়ে মামলা দায়ের হয়।

প্রথমত, চাকরী প্রার্থীদের অভিযোগ উক্ত পরীক্ষায় দুটি প্রশ্ন ভুল ছিল। সেক্ষেত্রে কি হবে? দ্বিতীয়ত, পার্সোনালিটি টেস্টে যাঁর নম্বর বেশি, তিনি চাকরি পাবেন। মেরিট লিস্ট প্রকাশের পর এমনটাই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল পি.এস.সি। যা আইনের চোখে সন্দেহজনক। চাকরী প্রার্থীদেরও বিষয়টি সন্দিহান করে তুলেছে। তৃতীয়ত, রিজার্ভেশনের নিয়ম লঙ্ঘন করার অভিযোগ রয়েছে। অভিযোগ, স্পোর্টসম্যানের শংসাপত্র না থেকেও কোটায় চাকরি পেয়েছেন অনেকে। এক্ষেত্রে, দুর্নীতির অভিযোগ উঠছে।

আরও পড়ুনঃ
রাজ্যের স্কুলে শিক্ষক ও গ্রূপ-ডি কর্মী নিয়োগ
জুলাই মাসের ১০ টি চাকরির খবর

এর আগে দমকলের নিয়োগে এই দুর্নীতি নিয়ে স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইব্যুনাল (SAT) -এ মামলা করেছিল চাকরীপ্রার্থীরা। সেখানে আবেদন খারিজ হয়ে যায়। সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েই কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেন পরীক্ষার্থীরা। যার রায়ে এদিন স্থগিতাদেশ দেয় মহামান্য হাইকোর্ট। সবমিলিয়ে রাজ্যের প্রায় প্রতিটি নিয়োগ মামলায় জড়িয়ে যাচ্ছে দুর্নীতির জন্য।