রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা বাতিল, ৩০ মিনিট অপেক্ষা করেও এলোনা পরীক্ষার্থী

রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা বাতিল

বাতিল হলো রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা। খাতা প্রশ্নপত্র নিয়ে পরীক্ষার হলে পরীক্ষকরা হাজির থাকলেও এদিন পরীক্ষা দিতে আসেননি মেডিকেলের পড়ুয়ারা। এই পরিস্থিতিতে এদিন ২৭ শে জুন সোমবার
তৃতীয় সেমেস্টারের পরীক্ষা রয়েছে। কিন্তু সেই পরীক্ষা হবে কিনা, তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়। যারা পরীক্ষা নিতে এসেছিলেন ২৫-৩০ মিনিট অপেক্ষা করার পরে আজকের মত পরীক্ষা বাতিল বলে ঘোষণা করেন। এই মুহূর্তে কলকাতা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে ১৪ জন ডাক্তারি পড়ুয়া করোনা আক্রান্ত। করোনার কারণে পরীক্ষা দিতে আসেননি ডাক্তারি পড়ুয়ারা এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

তবে কলেজ কর্তৃপক্ষ করোনা আক্রান্তদের আলাদা আলাদা ঘরে বসে পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করেছে। বাকিদের র‍্যাপিট অ্যান্টিজেন টেস্ট করে পরীক্ষা হলে প্রবেশের অনুমতি মিলবে। কিন্তু যারা মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের ডাক্তার তারা পিপিই কিট পরে পরিক্ষা নিতে চলে আসেন। কিন্তু যারা পরীক্ষা দেবেন তারাই পরীক্ষা হলে আসেননি এর জেরেই বাতিল পরীক্ষা।

চাকরির খবরঃ রাজ্যে গ্রুপ- ডি কর্মী নিয়োগ

পড়ুয়াদের দাবি, তাদের মধ্যে অনেকেই করোনা আক্রান্ত এমন সময় পরীক্ষা বন্ধ রাখা হোক, কলেজ কতৃপক্ষ তথ্য চেপে রেখে কলেজ আস্তে বলেছেন এমনটাই দাবি তাদের। তবে কলেজ কতৃপক্ষ সাফ জানিয়ে দেয় কলেজ খোলা থাকবে পরীক্ষাও বন্দোবস্ত হবে। কোনো পড়ুয়া না এলে অনুপস্থিত বলে গণ্য করা হবে। মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল অফিস সূত্রে খবর, হাসপাতালের কনফারেন্স রুমে প্রিন্সিপাল রঘুনাথ মিশ্র সহ অন্যান্য অধ্যাপকরা বৈঠক করেন। সেখানেই সমস্যা নিয়ে আলোচনা হয়। সিদ্ধান্ত হয়, যদি বেশি সংখ্যায় পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দিতে আসে, তাহলেই পরীক্ষা হবে। না হলে পরীক্ষা বাতিল বলে গণ্য হবে। কিন্তু পরীক্ষা বাতিল বলে সরকারিভাবে কোনও কিছু জানানো হয়নি।