পড়ুয়াদের জন্য সুখবর! এবার একাদশ শ্রেণী থেকেই পড়া যাবে ভোকেশনাল বিষয়ে

একাদশ শ্রেণীতে ভোকেশনাল সাবজেক্ট বা বৃত্তিশিক্ষার বিষয়ে পড়াশোনায় নতুন দিগন্ত পড়ুয়াদের জন্য। এবার থেকে মাধ্যমিক স্তরে বৃত্তিশিক্ষার বিষয় না থাকলেও একাদশ শ্রেণীতে সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে পড়াশোনা করতে পারবেন পড়ুয়ারা। আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকেই কার্যকর হতে চলেছে এই সিদ্ধান্ত। সম্প্রতি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানালো উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ।

বর্তমানে ভোকেশনাল বিষয় নিয়ে পড়াশোনায় আগ্রহী হন বহু ছাত্রছাত্রী। এই ভোকেশনাল বা বৃত্তিমূলক শিক্ষায় ইলেকট্রনিক্স, সিকিউরিটি, হেলথ কেয়ার, বিউটি অ্যান্ড ওয়ালনেস, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি, সহ একাধিক বিষয়ে পড়াশোনা করানো হয়। এছাড়াও এগ্রিকালচার, প্লাম্বিং, কন্সট্রাকশন, অরগানাইজড রিটেলিং, জাতীয় বিষয়গুলির অগ্রগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এছাড়াও যুক্ত হতে চলেছে আরও বেশ কিছু নতুন বিষয়। বর্তমানে প্রায় ৬৭৬ টি বিদ্যালয়ে বৃত্তিশিক্ষার বিষয় নিয়ে পড়ানো হয়। প্রতি বছর প্রচুর ছাত্রছাত্রী অংশগ্রহণ করেন পঠনপাঠনে। মনে করা হচ্ছে, আগামীদিনে আরও বাড়তে পারে পড়ুয়া সংখ্যা। অনেকদিন ধরেই একাদশ শ্রেণী থেকে ভোকেশনাল বিষয়ে পড়াশোনার দাবি জানানো হচ্ছিল। এ বিষয়ে একাধিকবার রাখা হয় প্রস্তাব। তবে অবশেষে সিদ্ধান্ত জানালো উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ।

FB Join

আরও পড়ুনঃ মাধ্যমিক সাজেশন ২০২৩

এতদিন মাধ্যমিক স্তরে না থাকলে সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে উচ্চমাধ্যমিকে পড়াশোনা করতে পারতেন না পড়ুয়ারা। একমাত্র নবম, দশম শ্রেণীতে কোনোও নির্দিষ্ট বৃত্তিশিক্ষার বিষয় নিয়ে পড়ার পরেই একাদশ শ্রেণীতে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ভর্তি হয়ে পড়াশোনার সুযোগ পেতেন তাঁরা। কিন্তু বর্তমানে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সিদ্ধান্ত অনুসারে মাধ্যমিকে না থাকলেও একাদশ শ্রেণীতে সেই বিষয় নিয়ে সরাসরি ভর্তির সুযোগ পাবেন পড়ুয়ারা। অর্থাৎ এবার থেকে সংসদের নয়া সিদ্ধান্ত অনুসারে একাদশ শ্রেণীতে পড়ার জন্য মাধ্যমিক স্তরে সেই ভোকেশনাল বিষয় থাকা বাধ্যতামূলক নয়। আগামী (২০২৩-২০২৫) শিক্ষাবর্ষ থেকে এই নতুন সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে বলে জানা যাচ্ছে। অতএব বোঝাই যাচ্ছে সংসদের এহেন সিদ্ধান্তে স্বাভাবিকভাবেই খুশি ছাত্রছাত্রীরা।