৪ বছরেই গ্র্যাজুয়েশন ও বি.এড শেষ হবে, জানিয়ে দিলো কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রক

৪ বছরেই গ্র্যাজুয়েশন ও বি.এড শেষ হবে

আপনি কি শিক্ষকতা করতে চান? যদি আপনার উত্তর হ্যাঁ হয় তাহলে আপনার জন্য সুখবর! নবম- দশম শ্রেণীতে শিক্ষকতা করতে চাইলে যোগ্যতা লাগে গ্র্যাজুয়েশন পাশ সঙ্গে বি.এড কোর্স। এই মুহূর্তে এই দুটি যোগ্যতা সম্পূর্ণ করতে একজন পড়ুয়ার সময় লাগে ৫ বছর (গ্র্যাজুয়েশন ৩ বছর + বি.এড ২ বছর)। কিন্তু এবার থেকে এই দুটি যোগ্যতা শেষ করতে সময় লাগবে মাত্র ৪ বছর। এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন শিক্ষানীতিতে।

নতুন জাতীয় শিক্ষানীতির ওপর নির্ভর করে কেন্দ্রীয় শিক্ষা দপ্তর দেশের শিক্ষকতার যোগ্যতার পরিকাঠামো ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা নিয়েছে। এবার থেকে শিক্ষকতার জন্য আলাদাভাবে BA/ B.SC/ B. COM ডিগ্রির কোন দরকার হবে না। যেসব পড়ুয়ারা শিক্ষকতা করতে চান তাঁরা একটিমাত্র কোর্সের মাধ্যমে গ্র্যাজুয়েশন ও বি.এড কোর্স শেষ করতে পারবেন। এর জন্য আলাদা আলাদা কলেজে আলাদা কোর্সে ভর্তি হতে হবে না। এই নতুন বি.এড কোর্সের পরিকল্পনা NCTE (National Council for Teacher Education) ও কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রকের যৌথ উদ্যোগে গঠন করা হয়েছে।

যেসকল পড়ুয়ারা এই চার বছরের ইন্টিগ্রেটেড বি.এড কোর্সটি সম্পন্ন করবে তাদের একসঙ্গে BA.B.Ed/ B.Sc.B.Ed/ B.Com.B.Ed ডিগ্রী প্রদান করা হবে। যার মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট ছাত্র- ছাত্রীরা নিজেদের বিষয়ের পড়াশোনার পাশাপাশি উপযুক্তভাবে এডুকেশন ডিগ্রী অর্জন করতে পারবে। জানা গেছে, ২০২২- ২৩ শিক্ষাবর্ষ থেকে এই নতুন ইন্টিগ্রেটেড বি.এড কোর্স চালু হবে। আগামী দিনে এই ডিগ্রীই শিক্ষকতার উপযুক্ত হিসেবে ধরা হবে।

আরও পড়ুনঃ
রাজ্যের স্কুলে শিক্ষক নিয়োগ চলছে
এইট পাশে গ্রূপ-ডি কর্মী নিয়োগ
রাজ্যের খাদ্য দপ্তরে কর্মী নিয়োগ

পাশাপাশি এই ইন্টিগ্রেটেড B.Ed কোর্স করার ফলে পড়ুয়াদের এক বছরের সময় বেঁচে যাবে। এক বছর ও দুই বছরের B.ED সম্পন্ন করা ছাত্র- ছাত্রীদের বিকল্প সুবিধা প্রদান করা হবে বলেও জানানো হয়েছে। কেবল স্নাতক নয়, স্নাতকোত্তর পর্যায়ের পড়ুয়ারাও এই নতুন কোর্সটির সুবিধা নিতে পারবে। এই সুন্দর পরিকাঠামো উপযুক্ত শিক্ষক তৈরি করবে বলে মনে করছেন কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রক।