রাজ্য পুলিশ ও PSC নতুন নিয়োগের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর, সবার জন্য সুখবর!

রাজ্য পুলিশ ও PSC নতুন নিয়োগের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

খুব শীঘ্রই সমস্ত দপ্তরে শূন্যপদ পূরণ করার নির্দেশ দিলেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ ও পশ্চিমবঙ্গ পাবলিক সার্ভিস কমিশন ও রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তরে যত ফাঁকা পদ আছে তা দ্রুত নিয়োগ করার নির্দেশ দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন ৩ ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার কলকাতা নেতাজি ইন্ডোরে রাজ্যের প্রশাসনিক বৈঠকে এই ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই বৈঠকে ডিজে মনোজ মালব্য ও মুখ্যমন্ত্রীর কথোপকথনের মাঝখানে হঠাৎই মুখ্যমন্ত্রী প্রশ্ন করেন, পুলিশে যেসব শূন্যপদ গুলি ফাঁকা আছে সেগুলি পূরণ হচ্ছে কিনা? মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্নের উত্তরে ডিজি মনোজ মালব্য জানান, ‘পুলিশে অনেক শূন্যপদ আছে, আমরা তা পূরণ করার চেষ্টা করছি’। এরপর মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ওগুলো চটপট পূরণ করতে বল। যাঁরা বসে আছেন তারা করতেই চান না’।

পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্য সচিব কে বলেন, পিএসসি কে যেসব রিক্রুটমেন্ট করতে বলা হয়েছে সেগুলি যেন তাড়াতাড়ি করে। এবং স্বাস্থ্য দপ্তরে যেসব ফাঁকা পদ রয়েছে তা পূরণের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানান, ‘কারন ডাক্তার, নার্স, অফিসার এগুলো তো আমার চাই, (ফাঁকা পদ) ফেলে রাখা যাবে না’।

চাকরির খবরঃ ৮ হাজার শূন্যপদে গ্রূপ-সি কর্মী নিয়োগ

প্রসঙ্গত গত ২ ফেব্রুয়ারি, বুধবার রাজ্য পাবলিক সার্ভিস কমিশনের দপ্তরের সামনে পশ্চিমবঙ্গের চাকরি প্রার্থীরা নতুন নিয়োগ ও পরীক্ষার ফল প্রকাশের দাবিতে বিক্ষোভ দেখান। চাকরিপ্রার্থীদের অভিযোগ, গত দু’বছর ধরে পিএসসি র তরফ থেকে নতুন কোন নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হচ্ছে না, এমনকি পরীক্ষা হয়ে যাওয়া নিয়োগ গুলির ফলাফল কিংবা নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করার সদিচ্ছা নেই পিএসসির। এই ধরনের কয়েকদফা দাবি নিয়ে চাকরি প্রার্থীরা বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছিলেন পিএসসি অফিসের সামনে। গত ২ ফেব্রুয়ারি আন্দোলনের একদিনের মধ্যেই ৩ ফেব্রুয়ারি পিএসসি তরফে জোড়া রেজাল্ট ও মুখ্যমন্ত্রীর নতুন নিয়োগের নির্দেশ আন্দোলনের ফল বলেই মনে করছেন চাকরিপ্রার্থীরা।

চাকরির খবরঃ রাজ্যে ৬ হাজার ইন্টার্ন নিয়োগ