নবান্ন স্কলারশিপ ২০২২, আবেদন করলে পাবেন ১০ হাজার টাকা।

নবান্ন স্কলারশিপ ২০২২

পশ্চিমবঙ্গের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য একটি সরকারি স্কলারশিপ হল নবান্ন স্কলারশিপ বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ। যেসব ছাত্র ছাত্রীরা মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক বা কলেজের পরীক্ষায় পাশ করে পরবর্তী ক্লাসে ভর্তি হয়েছেন তারা নবান্ন স্কলারশিপ ২০২২বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ ২০২২ -এর আবেদন করতে পারবেন। বিভিন্ন শিক্ষাগত যোগ্যতার নিরিখে এই স্কলারশিপে আবেদন করলে প্রতিবছর ১০ হাজার টাকা পাওয়া যাবে।

নবান্ন স্কলারশিপ বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ আবেদনের যোগ্যতা-
১) নবান্ন স্কলারশিপ বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ আবেদন করার জন্য বিভিন্ন কোর্স অনুযায়ী আলাদা আলাদা শিক্ষাগত যোগ্যতার মান রয়েছে। যেসব ছাত্র-ছাত্রী মাধ্যমিকে ৬৫ শতাংশ নম্বর নিয়ে উচ্চ মাধ্যমিকে ভর্তি হয়েছে, আবার যেসব ছাত্র ছাত্রীরা উচ্চ মাধ্যমিকে ৬০ শতাংশ নম্বর নিয়ে কলেজে ভর্তি হয়েছে, অথবা যে সমস্ত ছাত্র ছাত্রীরা কলেজে ৫৫ শতাংশ নম্বর নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে তারা এই নবান্ন স্কলারশিপ বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ -এ আবেদন করতে পারবেন।
২) নবান্ন স্কলারশিপ ২০২২-এ আবেদন করার জন্য আবেদনকারীর পারিবারিক বাৎসরিক আয় ৬০ হাজার (৬০,০০০/-) টাকার কম হতে হবে।
৩) আবেদনকারীকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের একজন স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
৪) যেসব ছাত্র ছাত্রীরা বিকাশ ভবন স্কলারশিপ (Swami Vivekananda Merit Cum Means Scholarship) -এ আবেদন করেছেন অথবা আগে থেকেই অন্য যেকোনো সরকারি স্কলারশিপ পাচ্ছেন তারা নবান্ন স্কলারশিপ বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ -এ আবেদন করতে পারবেন না।

আরও পড়ুনঃ বিকাশ ভবন স্কলারশিপ ২০২২

নবান্ন স্কলারশিপ টাকার পরিমান-
নবান্ন স্কলারশিপ -এ আবেদন করলে প্রতিবছর ১০,০০০/- টাকা পাওয়া যাবে।

প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস-
১) নবান্ন স্কলারশিপ আবেদনপত্র (link given below)
২) Self Declaration Copy (link given below)
৩) এলাকার MLA Recommendation Certificate (link given below)
৪) শেষ পরীক্ষার মার্কশীট।
৫) বর্তমান কোর্সে ভর্তির রশিদ।
৬) সরকারি গেজেটেড Group- A অফিসার দ্বারা বাৎসরিক আয়ের সার্টিফিকেট।
৭) এন্ট্রান্স পরীক্ষার র‍্যাঙ্ক কার্ড (প্রযোজ্য হলে)।

আরও পড়ুনঃ সীতারাম জিন্দাল স্কলারশিপ ২০২২

নবান্ন স্কলারশিপ আবেদন পদ্ধতি-
১) নবান্ন স্কলারশিপ ২০২২বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ ২০২২উভয় স্কলারশিপের আবেদন পদ্ধতি সমান। আবেদন করতে পারবেন সরাসরি অফলাইনের মাধ্যমে। তবে নবান্ন স্কলারশিপ বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ আবেদনের ক্ষেত্রে দুটো আলাদা আলাদা ঠিকানায় আবেদন পত্র পাঠাতে হবে। আবেদনপত্রটি ডাউনলোড করে একটি A4 সাইজের কাগজে প্রিন্ট আউট নিতে হবে।
২) প্রিন্ট আউট করা আবেদনপত্রটি সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে। এবং আবেদনপত্রটির নির্দিষ্ট স্থানে আবেদনকারীর একটি পাসপোর্ট সাইজের ফটো লাগাতে হবে।
২) আবেদনপত্রের পাশাপাশি সেল্ফ ডিক্লারেশন ফর্ম বা স্ব- ঘোষণাপত্র পূরণ করতে হবে।
৩) আপনার এলাকার MLA -এর Recommendation Certificate বা এম.এল.এ সুপারিশ করা শংসাপত্র নিতে হবে।
৪) যেকোন গ্যাজেটেড গ্রুপ- এ অফিসার দ্বারা পারিবারিক বার্ষিক আয়ের শংসাপত্র নিতে হবে।

উপরে উল্লিখিত সমস্ত নথিপত্র গুলি গ্রুপ- এ গ্যাজেটেড অফিসার দ্বারা Attested করতে হবে। আবেদনপত্রের সাথে Attested করা নথিপত্র সংযুক্ত করে নির্দিষ্ট অফিসে জমা দিতে হবে। কেবল আবেদনকারী নিজে অথবা অভিভাবক এই ফর্ম জমা দিতে পারবেন। আবেদনপত্র জমা দিতে হবে সরাসরি অফিসে গিয়ে।

আরও পড়ুনঃ ঐক্যশ্রী স্কলারশিপ ২০২২

আবেদনের ঠিকানা-
নবান্ন স্কলারশিপ জমা দেওয়ার ঠিকানা-
Nabanna, 14th Floor, 325 Sarat Chatterjee Road, Shibpur, Howrah- 711102উত্তরকন্যা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ জমা দেওয়ার ঠিকানা-
UTTARKNYA, P.O.Satellite Township, Fulbari, Jalpaiguri-734015

নীচে দেওয়া লিংকে ক্লিক করে নবান্ন স্কলারশিপ ২০২২বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ ২০২২ -এ আবেদন করার ফর্ম ডাউনলোড করতে পারবেন।

Nabanna Scholarship Application Form: Download Now