বাংলা বানান জানেন না প্রাইমারি শিক্ষক, স্কুলের মেন গেটে তালা ঝুলিয়ে দিলেন অভিভাবকরা

বাংলা বানান জানেন না প্রাইমারি শিক্ষক

তিনি স্কুলের শিক্ষক। কিন্তু পারেননা ইংরেজি পড়াতে। এমনকি বাংলা ক্লাসেও আমতা আমতা করেন। ভুলভাল বাংলা বানান শেখান ছাত্র- ছাত্রীদের। এই অভিযোগ উঠলো বাঁকুড়ার ওন্দা থানার চড়ুইপুর প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক রাজীব কুমার দীক্ষিতের বিরুদ্ধে। এলাকার অভিভাবকদের দাবী, এই শিক্ষক সম্পূর্ণরূপে অযোগ্য। ছাত্র- ছাত্রীদের ভুলভাল পড়ান তিনি। ক্লাসে ইংরেজি পাঠ্যবই পড়াতে চান না। বাংলাও ভুলভাল পড়ান। ক্লাসে ছাত্রছাত্রীরা উৎসাহ হারিয়ে ফেলে।

বিষয়টি অভিভাবকদের নজরে পড়লে তারা এই বিষয়ে প্রধান শিক্ষকের কাছে অভিযোগ করেন। তাতে লাভ হয়নি বিশেষ। তাই এদিন সকালে গ্রামবাসী সহ অভিভাবকরা স্কুলের মেন গেটে তালা ঝুলিয়ে দেন। অভিযুক্ত শিক্ষক সহ সমস্ত শিক্ষকদের গেটের বাইরেই আটকে দেন। তাদের বক্তব্য, যতদিন পর্যন্ত ঐ শিক্ষককে সরিয়ে দেওয়া না হয়, ততদিন এই আন্দোলন চলবে।

আরও পড়ুনঃ ২০১৪ প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগের দুর্নীতি নিয়ে মামলা

কার্যত অভিভাবকদের সঙ্গে একমত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকও। তিনিও বলেন, ঐ শিক্ষক পড়াতে পারেন না। তাঁর এই অযোগ্যতার বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে জানানো সত্ত্বেও কোনোরূপ কাজ হয়নি। অপরদিকে, অভিযুক্ত শিক্ষকের দাবী, এটা বড় একটা ষড়যন্ত্র। তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। রাজ্যে যেভাবে একের পর এক টাকার মাধ্যমে দুর্নীতি করে শিক্ষকতার চাকরি নেওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসছে, সেই জায়গায় শিক্ষকের ভুল পড়ানোর খবরে অবাক হওয়ার নতুন কিছুই দেখছেন না অভিভাবকদের একাংশ।

চাকরির খবরঃ বাংলা সহায়তা কেন্দ্রে নিয়োগ চলছে