প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে বড়সড় রদবদল, ঘোষণা করলো এনসিটিই

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে বড়সড় রদবদল

প্রাইমারি স্কুলে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে পুরানো পরিকাঠামো ঢেলে সাজালো এন.সি.টি.ই (NCTE)। এবার থেকে স্নাতক অর্থাৎ ব্যাচেলার ডিগ্রী স্তরে ৫০ শতাংশ নাম্বার না থাকলেও স্নাতকোত্তর স্তরে বি.এড সহ ৫৫ শতাংশ নম্বর থাকলেই প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন প্রাথমিক টেট পরীক্ষার জন্য। আবার NCTE তরফ থেকে এও জানানো হয়েছে যে স্নাতকোত্তর ৫৫ শতাংশ নম্বর সহ ৩ বছরের ইন্ট্রিগ্রেটেড বি.এড- এম.এড প্রশিক্ষণ থাকলেও প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণির এডুকেশন টিচার এবং শারীর শিক্ষার শিক্ষক পদে আবেদন করা যাবে।

চাকরির খবরঃ সাহিত্য একাডেমি দপ্তরে মাল্টিটাস্কিং স্টাফ নিয়োগ

পশ্চিমবঙ্গে প্রথম শ্রেণী থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত টেট পরীক্ষা বাধ্যতামূলক। নবম শ্রেণী থেকে কোনোরূপ টেট পরীক্ষা নেওয়া হয় না। কেবল বিষয় ভিত্তিক পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষক নির্বাচন করা হয়। তবে এবার থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত টেট পরীক্ষা নেওয়ার ঘোষণা করতে পারে এন.সি.টি.ই। কিছুদিন আগেই NCTE একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়েছে, নবীন জাতীয় শিক্ষা নীতির আওতায় দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত টেট বা কেন্দ্রীয় টেট নেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে। আপাতত পশ্চিমবঙ্গে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত টেট পরীক্ষা গ্রহণ করে পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। এবং ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত টেট পরীক্ষা নেওয়ার দায়িত্ব রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ স্কুল সার্ভিস কমিশনের হাতে। তবে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত টেট পরীক্ষা চালু হলে ওই পরীক্ষা গ্রহণ করার দায়িত্ব কার হাতে যাবে তা এখন দেখার।

আরও পড়ুনঃ কালী পূজার পরে কি স্কুল খুলবে? বললেন শিক্ষামন্ত্রী

প্রসঙ্গত, খুব শীঘ্রই ২০১৭ সালের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ হতে চলেছে। যদিও প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের চেয়ারম্যান আগেই জানিয়েছিলেন পুজোর আগেই ফলাফল প্রকাশ হতে পারে। পূজো শেষ হয়েছে, কিন্তু রেজাল্ট নেই। তবে চাকরিপ্রার্থীদের জন্য খুশির খবর হলো আগামী কিছুদিনের মধ্যেই ২০১৭ প্রাইমারি টেট পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হবে। প্রাইমারি টেট পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হলে ExamBangla.com -এর পাতায় প্রকাশিত হবে।