পশ্চিমবঙ্গের ২ টি বিশ্ববিদ্যালয় ভুয়ো, নেই কোনো ইউজিসির অনুমোদন

পশ্চিমবঙ্গের ২ টি বিশ্ববিদ্যালয় ভুয়ো

সারা দেশের মোট ২১ টি বিশ্ববিদ্যালয়কে ভুয়ো বিশ্ববিদ্যালয় ঘোষণা করলো বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন বা ইউজিসি। ভয়ঙ্কর ব্যাপার এই ২১ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের ২ টি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। রাজ্যের দুটি গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে বেআইনী ভাবে পরিচালিত হবার জন্য ভুয়ো বলে ঘোষণা করলো উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা ইউজিসি।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন এদিন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানায়, এই ২১ টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ইউজিসির নিয়ম কানুন মেনে পরিচালিত হয় না। নিজেদের বিধি এবং আইন অনুযায়ী পরিচালিত হয় এই বিশ্ববিদ্যালয় গুলি। তাই ভুয়ো বলে ঘোষণা করা হয়েছে। দেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভুয়ো বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে দেশের রাজধানী দিল্লিতে। সেখানে মোট ৮ টি বিশ্ববিদ্যালয় ভুয়ো বলে জানায় ইউজিসি। দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ পাবলিক অ্যান্ড ফিজিক্যাল হেলথ সায়েন্স, কমার্শিয়াল ইউনিভার্সিটি লিমিটেড, ইউনাইটেড নেশনস ইউনিভার্সিটি, ভোকেশনাল ইউনিভার্সিটি, ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, বিশ্বকর্মা ওপেন ইউনিভার্সিটি ফর সেল্ফ এমপ্লয়মেন্ট, এবং আধ্যাত্মিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রভৃতি বিশ্ববিদ্যালয়কে ভুয়ো বলে ঘোষণা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন।

আরও পড়ুনঃ
রাজ্যের স্কুলে ক্লার্ক ও হেড ক্লার্ক নিয়োগ
মাধ্যমিক পাশে আশা কর্মী পদে আবেদন করুন
কলকাতা মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনে মাধ্যমিক পাশে চাকরি

এছাড়াও উত্তরপ্রদেশের চারটি বিশ্ববিদ্যালয়, উড়িষ্যার দুটি বিশ্ববিদ্যালয়, অন্ধ্রপ্রদেশের একটি বিশ্ববিদ্যালয়, পন্ডিচেরীর একটি, কেরালার একটি এবং মহারাষ্ট্রের একটি বিশ্ববিদ্যালয়কে ভুয়ো বিশ্ববিদ্যালয় ঘোষণা করলো ইউজিসি।

পশ্চিমবঙ্গের চৌরঙ্গি এলাকার “ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ অল্টারনেটিভ মেডিসিন” এবং ঠাকুর পুকুরের “ইনস্টিটিউট অফ অল্টারনেটিভ মেডিসিন অ্যান্ড রিসার্চ” এই দুই বিশ্ববিদ্যালয়কে ভুয়ো এবং অবৈধ ভাবে পরিচালিত বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে ঘোষণা করলো বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন।