SSC নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে মুখ মুখলেন প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী, পড়ুন বিস্তারিত

SSC নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে মুখ মুখলেন প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী

স্কুল সার্ভিস কমিশনের (SSC) গ্রুপ- সি এবং গ্রুপ- ডি নিয়োগ মামলায় কলকাতা হাইকোর্টে বাগ কমিটির রিপোর্ট পেশ হয়েছে। এই রিপোর্ট দেখে চক্ষু চড়কগাছ সকলের। এমনকি এই রিপোর্টের ফলে কিছুটা অস্বস্তিতে পড়েছে রাজ্যের শাসক দলও। প্রদত্ত রিপোর্টে বলা হয়েছে, গ্রুপ-সি (Group C) -তে ৩৮১ জনকে ভুয়ো নিয়োগ করা হয়েছে। এঁদের মধ্যে ২২২ জন পরীক্ষাতেই বসেননি। আর বাকিরা ফেল করেও চাকরি পেয়েছেন।

এতদিন ধরে এসএসসির (SSC) বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল যে, প্যানেল তৈরি করে যে নিয়োগ করা হয়েছে তা অনেকটাই ভুয়ো। কার্যত এদিন বাগ কমিটির রিপোর্ট পেশের পর ঐ রিপোর্টে উক্ত অভিযোগই যেন প্রমাণ স্বরূপ মিললো। এই রিপোর্টে কাঠগড়ায় তোলা হয়েছে তৎকালীন এসএসসির দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত মোট ১১ জন কর্তাকে। তাঁরা হলেন, এসএসসির প্রোগ্রামিং অফিসার সমরজিৎ আচার্য, চেয়ারম্যান সৌমিত্র সরকার, মধ্যশিক্ষা পর্ষদের চেয়ারম্যান কল্যাণময় বন্দ্যোপাধ্যায়, স্কুল সার্ভিস কমিশনের সচিব অশোক কুমার সাহা, এসএসসির প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুবীরেশ ভট্টাচার্য, কমিশনের আঞ্চলিক চেয়ারম্যান শর্মিলা মিত্র, শুভজিত চট্টোপাধ্যায়, শেখ সিরাজউদ্দিন, মহুয়া বিশ্বাস ও চৈতালি ভট্টাচার্য।

চাকরির খবরঃ রাজ্যের কলেজে ক্লার্ক ও গ্রূপ-ডি কর্মী নিয়োগ

রাজ্যে চাকরির নিয়োগের ক্ষেত্রে অনিয়মের যে অভিযোগ উঠছিল, তা খতিয়ে দেখতে ২০২১ সালের ডিসেম্বর মাসে একটি কমিটি গঠন করে কোলকাতা হাইকোর্ট। চেয়ারম্যান হন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি রঞ্জিত কুমার বাগ। আরও ছিলেন মধ্যশিক্ষা পর্ষদের অফিসার পারমিতা রায় ও আইনজীবী অরুণাভ বন্দ্যোপাধ্যায়, এসএসসি’র তরফে কমিটিতে ছিল আশুতোষ ঘোষ।

এসএসসি গ্রূপ-সি নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে সাংবাদিকরা জিজ্ঞাসা করলে তিনি বিষয়টি সহজভাবে এড়িয়ে যান। যেহেতু এই কেলেঙ্কারি যে সময় হয়েছিল সে সময় শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তাই এ ক্ষেত্রে তাঁরও দায়িত্ব থাকে। কিন্তু তিনি এদিন বলেন, ওটা নিয়ে আমি কোনও কথা বলছি না। কারণ আমি তো ওই দফতরের মন্ত্রী নই। যে দফতরের মন্ত্রী সে উত্তর দেবে। শিক্ষা দপ্তর বিষয়টাকে কিভাবে দেখছে, তা না জেনে দুম করে বলে বসাটা ঠিক নয়। যেহেতু তিনি পূর্বে ঐ দফতরের মন্ত্রী ছিলেন, সেক্ষেত্রে তিনি কি কিছু বলতে চান এই দুর্নীতি নিয়ে? এই প্রশ্নের পর তিনি বলেন, ‘তাতে কী হয়েছে? পাঠান মোগলের টাইমেও তো অনেক ঘটনা ঘটেছে।’ এছাড়া আরোও বলেন, তিনি বাগ কমিটির রিপোর্ট সম্পূর্ণ দেখেননি, কিছুটা দেখেছেন,পুরোটা দেখার পর কিছু মন্তব্য করতে পারেন।

চাকরির খবরঃ রাজ্যে স্বাস্থ্য দপ্তরে আশা কর্মী নিয়োগ