উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে লাগবে জাতিগত শংসাপত্র, নতুন নিয়ম ঘোষণা সংসদের

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে লাগবে জাতিগত শংসাপত্র

এবার থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের ফর্ম পূরণের সময় আধার কার্ড এবং জাতিগত শংসাপত্র বাধ্যতামূলক বলে ঘোষণা করলো উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। আগামী বছর অর্থাৎ যারা ২০২৩ সালে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দেবেন, তাদের রেজিস্ট্রেশন হয়ে গেছে। তাদের জন্য এই নিয়ম লাগু হওয়া সম্ভব নয়। কিন্তু আগামী ২০২৪ সালে যারা উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দেবে তাদের ক্ষেত্রে আধার কার্ড এবং জাতিগত শংসাপত্র বাধ্যতামূলক ভাবে দিতে হবে।

তবে, যারা এখন একাদশ শ্রেণিতে পড়ছে অর্থাৎ ২০২৪ সালে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দেবে তাদের রেজিস্ট্রেশনের সময় আপাতত এই দুই নথি না দিলেও চলবে। কিন্তু উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার আগে ফর্ম পূরণের সময় নথি অবশ্যই দিতে হবে।

যদিও সংসদ থেকে প্রথমে জানানো হয়েছিল, এই বছর রেজিস্ট্রেশনের সময় আধার কার্ড এবং জাতিগত শংসাপত্র এই দুই নথি দিতে হবে। কিন্তু দেখা গেছে রাজ্যের বহু ছাত্রছাত্রীদের এখনও আধার কার্ড হয়নি। সেক্ষেত্রে সবার পক্ষে নথি দেওয়া সম্ভব নয়। তাই পরবর্তীতে ফর্ম পূরণের সময় নথি দিতে হবে বলে জানানো হয়েছে। ২০২৪ সালে যারা উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দেবে তাদের এই সময়ের মধ্যে আধার কার্ড করিয়ে নিতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ বর্তমানে কি কি চাকরির ফর্ম ফিলাপ চলছে

যদিও এই নতুন ঘোষণা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে, সুপ্রিম কোর্ট একটি মামলায় রায় দিয়েছিল যে কোনো ক্ষেত্রেই আধার কার্ড বাধ্যতামূলক করা যাবে না। তাহলে কি ভাবে উচ্চমাধ্যমিকের ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। সংসদ সূত্রে খবর, এখনও অনেক দেরী আছে ফর্ম পূরণের। এই সময়ের মধ্যে আইনী দিক খতিয়ে দেখা হবে।