অন্যান্য খবর

WBPSC Food SI Exam Update: এসএমএসের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে উত্তর! সরকারি কর্তা-সহ দু’জনকে গ্রেফতার করল সিআইডি

Advertisement

WBPSC Food SI Exam Update: রাজ্যের পাবলিক সার্ভিস কমিশন দ্বারা আয়োজিত ফুড সাব-ইন্সপেক্টর নিয়োগের পরীক্ষায় দুর্নীতি সংক্রান্ত লেটেস্ট আপডেট উঠে আসছে। লোকসভা ভোটের পূর্বে রাজ্যের পাবলিক সার্ভিস কমিশন ৪৩০ টি শূন্যপদের জন্য রাজ্যে ফুড সাব-ইন্সপেক্টর নিয়োগের পরীক্ষা আয়োজন করেছিল। বহু সংখ্যক পরীক্ষার্থী থাকায় দু’দিন ব্যাপী ৬ টি আলাদা শিফটে পরীক্ষা গ্রহণ করেছিল কমিশন। পরীক্ষা শেষ হতে না হতেই এই নিয়োগের পরীক্ষায় দুর্নীতির অভিযোগ সামনে আসে। পরীক্ষার্থীদের একাংশ দাবি করেন পরীক্ষার পূর্বেই সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রশ্নপত্র এবং উত্তরপত্র ভাইরাল করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট দাবির উপর ভিত্তি করে পরীক্ষার শেষে পাবলিক সার্ভিস কমিশনের দপ্তরে বিক্ষোভ দেখান পরীক্ষার্থীরা। পরবর্তীতে আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন পরীক্ষার্থীরা।

সেই মামলাতেই এবার নতুন তথ্য উঠে এল। নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে কলকাতা হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণে এই দুর্নীতির তদন্ত চালাচ্ছে রাজ্য পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ সিআইডি। দীর্ঘ কয়েক মাস যাবত এই দুর্নীতির তদন্তের পরে দু’জনকে গ্রেফতার করল সিআইডি। সিআইডি সূত্রে খবর, ধৃতদের মধ্যে একজন ওই ঘটনার ‘মাস্টারমাইন্ড’। এই দুর্নীতির পিছনে সম্পূর্ণ পরিকল্পনা তার ছিল। মূল অভিযুক্তের কাছ থেকে ১১ টি মোবাইল ফোন এবং একাধিক ব্যাঙ্কের পাস বই পাওয়া গেছে। একই সঙ্গে এই তদন্তে একজন সরকারি আধিকারিককেও গ্রেফতার করা হয়েছে বলে সুত্র মারফত খবর পাওয়া যাচ্ছে। পরীক্ষার হলে পরীক্ষার্থীদের এসএমএসের মাধ্যমে প্রশ্নের উত্তর পাঠানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছিল পরীক্ষা চলাকালীন। রাজ্য পুলিশের সিআইডি তল্লাশি চালিয়ে নদীয়ার কল্যাণী থেকে শঙ্কর বিশ্বাস নামে মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে। ধুবুলিয়া থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে আরেক অভিযুক্ত পাপাই দাসকে।

আরও পড়ুনঃ আপাতত স্থগিত ‘ডব্লিউবিসিএস’ পরীক্ষা

WBPSC Food SI Exam Update

এই দুইজনকে গ্রেপ্তারির পরবর্তী সময়ে আলিপুরের অতিরিক্ত মুখ্য বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট -এর আদালতে হাজির করানো হচ্ছে। সিআইডি সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, ধৃত শঙ্কর বিশ্বাস নামে ঐ ব্যক্তি সিজিও কমপ্লেক্স এ প্রিন্সিপাল একাউন্ট জেনারেলের দপ্তরে সিনিয়র অডিটর হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তার কাছ থেকেই মোবাইল এবং ব্যাঙ্কের পাশ বই উদ্ধার করেছে সিআইডি আধিকারিকরা। তদন্তের ভিত্তিতে গ্রেফতারের পরিপ্রেক্ষিতে এবার যথেষ্ট চিন্তার মধ্যে পড়েছেন রাজ্যের কয়েক লক্ষ ফুড সাব-ইন্সপেক্টর পরীক্ষার্থী। তদন্তে দুই ব্যক্তির গ্রেপ্তার হওয়ার ফলে ফুড সাব-ইন্সপেক্টর নিয়োগের পরীক্ষায় দুর্নীতির যে অভিযোগ সামনে এসেছিল তা সত্যি বলেই মনে করা হচ্ছে। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে নির্দিষ্ট নিয়োগের পরীক্ষা বাতিল করে পুনরায় পরীক্ষা হবে কি না সে বিষয়ে এখনও কোন সুনির্দিষ্ট তথ্য জানানো হয়নি পাবলিক সার্ভিস কমিশনের পক্ষ থেকে।

WBPSC Food SI Exam Update

Related Articles