রাজ্যের স্কুলে ২৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগে নেই বাধা, জানালো কলকাতা হাইকোর্ট

রাজ্যের স্কুলে ২৫ হাজারেরও বেশি শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগে নেই বাধা। জানিয়ে দিল কলকাতা হাইকোর্ট। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২১ একুশে জুলাইয়ের সভা মঞ্চ থেকে বলেছিলেন ১৭ হাজার শিক্ষকের চাকরি প্রস্তুত রয়েছে। কিন্তু আদালতের জটিলতায় নিয়োগ করা যাচ্ছে না। এই খবর বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তেই পদক্ষেপ গ্রহণ করে আদালত। রাজ্যের স্কুলে শিক্ষক নিয়োগের সমস্ত শূন্যপদের তালিকা তলব করেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

এদিন শুক্রবার এর প্রেক্ষিতে শিক্ষা দপ্তরের প্রধান সচিব রিপোর্ট জমা দিয়ে জানান, প্রধান শিক্ষক, একাদশ-দ্বাদশ ও নবম-দশম শিক্ষক পদে মোট ২১ হাজার ৬৯৪ টি শূন্যপদ রয়েছে। প্রাথমিক স্তরে রয়েছে ৩ হাজার ৯৩৬ টি শূন্যপদ। সব মিলিয়ে রাজ্যে প্রায় ২৫ হাজারেরও বেশি শূন্যপদ রয়েছে। তাহলে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা করা শূন্যপদ অর্থাৎ ১৭ হাজার শূন্যপদ সঠিক নয়। রাজ্য জুড়ে শিক্ষক পদে মোট শূন্যপদের সংখ্যা ২৫ হাজার।

চাকরির খবরঃ কেন্দ্রীয় পুলিশ বাহিনীতে ৮৫ হাজার নিয়োগ

এই সমস্ত শূন্যপদে নিয়োগ করার ক্ষেত্রে আদালতের কোন স্থগিতাদেশ আছে কিনা তা গভমেন্ট প্লিডার (জিপি) অনির্বাণ রায়ের কাছে জানতে চায় আদালত। এই সমস্ত শূন্যপদ পূরণের ক্ষেত্রে কোন আইনের জটিলতা নেই। এই মর্মে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, আদালতের বিধি নিষেধ না থাকলে কেন হচ্ছে না এই সমস্ত শূন্যপদে নিয়োগ? কেন আইনি জটের কথা বলে আদালতকে নিশানা করা হচ্ছে? যদিও এই প্রশ্নের সদুত্তর দিতে পারেনি গভমেন্ট প্লিডার (জিপি) অনির্বাণ রায়। কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি নির্দেশ দেন, ‘আমার বিশ্বাস, এরপর থেকে রাজনীতিবিদরা বিচার ব্যবস্থাকে রাজনীতির আঙিনায় জড়ানোর আগে বিশেষ সতর্ক হবেন’।