কলকাতা পুলিশ কনস্টেবল পরীক্ষা নিয়ে মামলা, তাহলে কি নিয়োগ আটকে যাবে?

কলকাতা পুলিশ কনস্টেবল পরীক্ষা নিয়ে মামলা

কলকাতা পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা। তাহলে কি নিয়োগ স্থগিত থাকবে? উত্তর হলো না। শেষ পর্যন্ত হাইকোর্টে মামলার জট কেটেছে। এবার জেনে নেওয়া যাক কলকাতা পুলিশ নিয়োগ নিয়ে মামলা হলো কেন? মোট ১৪১০ কনস্টেবল ও ২৫৬ জন মহিলা কনস্টেবল নিয়োগ করছে কলকাতা পুলিশ। নিয়োগ প্রক্রিয়ায় শূন্যপদের সংখ্যা ৬০০ বাড়ানো হয়েছে। মাধ্যমিক উত্তীর্ণরা আবেদন করতে পারবেন। ২৭ শে জুন ছিলো আবেদনের শেষ তারিখ। কলকাতা পুলিশের কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে অবশেষে কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল ও মহিলা কনস্টেবল নিয়োগে জটিলতা কাটল।

সম্প্রতি কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল ও মহিলা কনস্টেবল নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়েছিল। সেই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, লিখিত পরীক্ষা হবে বাংলায় এবং নেপালি ভাষাতে। কিন্তু এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করে বলে, এই পরীক্ষা নিতে হবে ইংরেজিতেও। এনিয়ে একটি মামলা হয় কলকাতা হাইকোর্টে। তাই কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল ও মহিলা কনস্টেবল নিয়োগ আটকে গিয়েছিল আইনি জটে। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না আবেদনকারী সংস্থার। কলকাতা হাইকোর্টের তরফে খারিজ করা হয়েছে এই মামলা।

চাকরির খবরঃ রাজ্যে গ্রুপ- ডি কর্মী নিয়োগ

কলকাতা পুলিস রিক্রুটমেন্ট বোর্ড তার কনস্টেবল নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার প্রশ্নপত্র করবে বাংলা ও নেপালি ভাষাতে। ওই মামলা ওঠে প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব ও বিচারপতি রাজর্ষী ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চে। এদিন ২৭ জুন সোমবার সেই মামলা খারিজ করে দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ। ফলে এখন আর কনস্টেবল পরীক্ষায় নিয়োগ প্রক্রিয়ায় কোনও বাধা রইল না। এতে খুশি কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল পরীক্ষার আবেদনকারী প্রার্থীরা।