স্কুল শিক্ষকের প্রাইভেট টিউশন পড়ানোর অভিযোগ! শিক্ষকদের আইনি নোটিশ শিক্ষা দপ্তরের

স্কুল শিক্ষকের প্রাইভেট টিউশন পড়ানোর অভিযোগ!

“রাইট টু এডুকেশন অ্যাক্ট” অনুযায়ী স্কুল শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন করা নিষিদ্ধ রয়েছে। কিন্তু আইনের তোয়াক্কা না করেই রমরমিয়ে চলে স্কুল শিক্ষকদের টিউশনির ব্যবসা। পূর্বে বহুবার স্কুল শিক্ষা দপ্তর এই নিয়ে সতর্ক করেছে শিক্ষকদের। কিন্তু তাতে কর্ণপাত করেননি রাজ্যের বেশিরভাগ স্কুল শিক্ষকই। এবার তাই বাধ্য হয়ে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার পথে স্কুল শিক্ষা দপ্তর।

রাজ্যের সরকারী এবং সরকারী সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুলের শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন পড়ানোর জন্য রাজ্যের বিভিন্ন এলাকার প্রায় ৪৫ টি স্কুলের ২০০ জন শিক্ষক শিক্ষিকার নামে নোটিশ জারি করেছে স্কুল শিক্ষা দফতর। ঐ স্কুলগুলির প্রধান শিক্ষক এবং প্রধান শিক্ষিকাদের থেকে কৈফিয়ত তলব করেছে স্কুল শিক্ষা দফতর। শিক্ষা দফতর জানতে চায় এরা এখনও প্রাইভেট টিউশনের সঙ্গে যুক্ত আছে কিনা?

চাকরির খবরঃ এয়ারপোর্ট অথরিটিতে কর্মী নিয়োগ

স্কুল শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন পড়ানো নিয়ে বহু সংগঠন সহ এককভাবে বহু চাকরী প্রার্থীরা বারবার অভিযোগ জানিয়েছেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে। সম্প্রতি শিক্ষামন্ত্রী এই বিষয় নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন। তারপরেই বেলঘরিয়া, দমদম, বরাহনগর প্রভৃতি জায়গা সহ রাজ্যের বিভিন্ন জেলার আরোও অনেক জায়গার স্কুলগুলোকে নোটিশ পাঠিয়েছে স্কুল শিক্ষা দফতর। মূলত এদিনের বৈঠকের পরেই স্কুলের নাম ধরে ধরে নোটিশ পাঠানো শুরু হয়।