৫০ হাজার শুন্য পদে নিয়োগ করতে চলেছে রাজ্য সরকার, ভোটের আগে বিরাট ঘোষণা

৫০ হাজার শুন্য পদে নিয়োগ করতে চলেছে রাজ্য সরকার

রাজ্যে বিধানসভা ভোটের আগে কর্মসংস্থান জোর দিচ্ছে রাজ্য সরকার। যখন গোটা দেশজুড়ে বেকারত্বের হার বৃদ্ধি পাচ্ছে, বিভিন্ন দপ্তরে কর্মী ছাঁটাই হচ্ছে, তখন কর্মসংস্থানে গুরুত্ব দিলো পশ্চিমবঙ্গ সরকার। ২০২১- ২২ সালের বাজেটে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে লক্ষাধিক নিয়োগের কথা ঘোষণা করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র অসুস্থ থাকায় এদিনের বাজেট পেশ করেছেন স্বয়ং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বেকার চাকরি প্রার্থীরা এদিনের বাজেটের দিকে তাকিয়ে ছিলেন, বাজেটে কর্মসংস্থানে কতটা গুরুত্ব দেয় রাজ্য সরকার, তা দেখার জন্য। শেষ পর্যন্ত বাজেটে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা, রাজ্যের যুব সম্প্রদায়কে নিরাশ করেনি।

আরও পড়ুন: মাধ্যমিক পাশে চাকরির সুযোগ

আরও পড়ুন: রাজ্যের সমবায় ব্যাংকে চাকরি

আরও পড়ুন: মাধ্যমিক পাশে ক্লার্ক নিয়োগ চলছে

বাজেটে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, ২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার পর রাজ্যের বিভিন্ন দপ্তরে বহু শূন্যপদ ফাঁকা ছিল। আমরা (মমতা সরকার) ১০ বছরে ৪ লক্ষেরও বেশি শূন্যপদে নিয়োগ করেছি। এদিনের বাজেট অনুযায়ী আগামী তিন বছরের মধ্যে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন বিভাগে মোট ৫০ হাজার শূন্যপদে কর্মী নিয়োগ করা হবে। পাশাপাশি রাজ্যের পুলিশ বিভাগে এই মুহূর্তে প্রায় ৬০ হাজার পদ খালি আছে। এই ৬০ হাজার পদও পূরণ করা হবে আগামী তিন বছরের মধ্যে।

কিন্তু এই ঘোষণা শুধু ঘোষণাই? নাকি কার্যকরও হবে? সব কিছু সময়ের অপেক্ষা। তবে রাজ্যের বিধানসভা ভোটের আগে রাজ্য বাজেটে কর্মসংস্থানের ওপর জোর দেওয়ায় রাজ্যের যুবক-যুবতীরা আশার আলো দেখছে।