আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেলো পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষা দপ্তর, করোনা কালেও শিক্ষায় পিছিয়ে ছিল না রাজ্য

আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেলো পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষা দপ্তর

‘স্কচ গোল্ড অ্যাওয়ার্ড’ পুরস্কারে সম্মানিত রাজ্যের স্কুল ও উচ্চ শিক্ষা দপ্তর। এই সম্মানে স্বভাবতই খুশি ও গর্বিত রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর থেকে শুরু করে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। সাফল্যের জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ দিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রী। দেশজুড়ে সরকারের নানান কাজের গুণমান বিচার করে পুরস্কৃত করে ‘স্কচ’ নামে একটি সংস্থা যা ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গ নানা ক্ষেত্রে ‘স্কচ’ -এর স্বীকৃতি পেয়েছে। এর আগে রাজ্যের অর্থ দপ্তরও একই পুরস্কার পেয়েছিল। তার সাথে এবছর আবার ‘স্কচ গোল্ড’ পুরস্কারে নতুন করে নাম লেখালো রাজ্য শিক্ষা দপ্তর।

করোনা পরিস্থিতিতে দেশজুড়ে প্রায় ৫৬০ দিনেরও বেশি দিন ধরে বন্ধ ছিল রাজ্যের বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলি। ফলস্বরূপ দেশজুড়ে শিক্ষাক্ষেত্রে চরম অবনতি দেখা দিয়েছিলো। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের ক্ষেত্রে বেশি সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়নি শিক্ষার্থীদের। ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশুনার যাতে অসুবিধা না হয় তার জন্য বিশেষ নজর রেখেছিল রাজ্য সরকার। অনলাইনে শিক্ষাদানের ক্ষেত্রে একাধিক উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল সরকারের তরফ থেকে। স্কুল বন্ধ থাকলেও স্কুল থেকে নিয়মিত ‘মিড ডে মিল’ দেওয়া হত। তেমনই উচ্চ মাধ্যমিক ছাত্র-ছাত্রীদের অনলাইন পঠন- পাঠনের জন্য ‘ট্যাব’ -এর ব্যবস্থা করেছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় -এর সরকার।

অন্যদিকে, উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে ‘স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড’ নামক প্রকল্পের উদ্যোগ নেওয়া হয়। শিক্ষাক্ষেত্রে রাজ্যের এই একাধিক উদ্যোগগুলি সারা দেশজুড়ে এমনকি দেশের বাইরেও প্রশংসা পেয়েছে। করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষার জন্য রাজ্যের এই সমস্ত বিশেষ অবদানের কারণে ‘স্কচ গোল্ড আওয়ার্ড’ সম্মানে সম্মানিত স্কুল ও উচ্চ শিক্ষা দপ্তর। তবে, শুধু শিক্ষা ক্ষেত্রে নয়, পর্যটন ক্ষেত্রেও এই সম্মান লাভ করেছে রাজ্য। রাজ্যের পর্যটন দপ্তরের এই পুরস্কারপ্রাপ্তির খবর, নিজেই ট্যুইট করে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বভাবতই তিনি খুশি ও আপ্লুত।