নিজের বাড়িতে শুরু করুন এই ব্যবসা, প্রতিমাসে ৫০ হাজার রোজগার

ধূপকাঠি তৈরীর ব্যবসা

বিকল্প কর্মসংস্থানের নতুন একটি প্রতিবেদনে সকলকে স্বাগত। আজকের এই পোস্টে একটি সুন্দর ব্যবসার আইডিয়া নিয়ে আলোচনা করা হবে। যেটি আপনি খুব কম টাকায় শুরু করে প্রতিমাসে ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত উপার্জন করতে পারবেন। এমনকি এই ব্যবসাটি নিজের বাড়িতেই করতে পারবেন। এই ব্যবসায় ক্ষতির সম্ভাবনা খুবই কম, এবং সারা বছর ধরেই এর প্রচুর চাহিদা থাকে। এই ব্যবসায় আপনি ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ পর্যন্ত লাভ রাখতে পারবেন।

ধূপকাঠি তৈরীর ব্যবসা

এই ব্যবসাটি বাস্তবেই খুব লাভজনক ব্যবসা, আপনি এক প্যাকেট ধূপকাঠি বানাতে যত পরিমাণ টাকা খরচ করবেন তার দু-গুণ টাকায় আপনি এটি পাইকারি বাজারে বিক্রি করতে পারবেন। ধূপকাঠি এমন একটি দ্রব্য যা প্রত্যেকটি বাড়িতে ব্যবহৃত হয়। মন্দির, মসজিদ কিংবা বিভিন্ন উপাসনা কেন্দ্রে ধূপের চাহিদা প্রচুর। এই ব্যবসায় ক্ষতির সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। এই ব্যবসা শুরু করতে কোন কোন মেশিন, কী কী কাঁচামাল লাগবে এবং ধুপ তৈরী করার সম্পূর্ণ পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করা হল।

আগরবাতির ব্যবসা

যেহেতু আপনি ব্যবসা নতুন শুরু করতে চাইছেন তাই কোনো মেশিন কিনে বেশি টাকা বিনিয়োগ করার দরকার নেই। আপনি কলকাতা থেকে পাইকারি দরে বিভিন্ন ধরনের গন্ধহীন ধূপকাঠি কিনে আনতে পারেন। কেজি প্রতি ১০০ টাকারও কম দরে বিভিন্ন ধরনের, বিভিন্ন সাইজের ধূপকাঠি পেয়ে যাবেন। সেক্ষেত্রে আপনাকে একদম নতুন করে ধূপকাঠি বানানোর মেশিন কিনতে হবে না। খুব কম টাকার মধ্যে আপনি অনেক পরিমান গন্ধহীন ধূপকাঠি পাইকারি দরে কিনতে পারবেন। পাইকারি দরে কিনে আনা ধূপকাঠি গুলির সাথে যোগ করতে হবে বিভিন্ন ধরনের সুগন্ধি। যেমন চন্দন, রজনীগন্ধা, লিলি প্রভৃতি। সুগন্ধিও আপনি কলকাতা পাইকারি বাজার থেকে পেয়ে যাবেন। বিভিন্ন ধরনের সুগন্ধি বিভিন্ন দামে পাওয়া যায়। এর সঙ্গে আপনাকে আনতে হবে সুগন্ধি মিশ্রনের একটি তেল।

এখন আপনার সুগন্ধি ধূপকাঠি তৈরী হয়ে গেছে। এবার প্যাকেজিং -এর পালা। কলকাতার পাইকারি বাজারে সাধারন পেপারের প্যাকেট গুলি এক টাকা করে পাওয়া যায়। আপনি যদি নিজের কোম্পানির নাম লেখানো প্যাকেট নিতে চান তাহলে সেখানেই আপনি অর্ডার দিতে পারেন।প্যাকেটে ধুপ ভরে নিয়ে প্যাকেট গুলির মুখ বন্ধ করার জন্য একটি মেশিন প্রয়োজন হবে যেটির দাম মাত্র ৮০০- ১০০০ টাকা। এই মেশিনটি কলকাতার বাজারে কিংবা অনলাইন থেকেও কিনে নিতে পারেন।

আগরবাতি তৈরির পদ্ধতি

ধরুন আপনি ১ কেজি ওজনের ১০ টি ধূপের বান্ডিল এনেছেন। এরপর ধূপকাঠি গুলিতে সুগন্ধি যোগ করতে হবে।
একটি বড় লম্বা পাত্রে সুগন্ধি এবং তার সঙ্গে আনা তেল একত্রে মিশিয়ে ১ কেজির এক একটি বান্ডিল ওই মিশ্রণে ডোবাতে হবে। সামান্য কিছু সেকেন্ড ডুবিয়ে রাখার পর তুলে নিয়ে লম্বা ভাবে বান্ডিলটিকে কোনো প্লাস্টিকের ওপর রেখে দিন, যাতে করে ধূপকাঠির উপর লেগে থাকা অতিরিক্ত সুগন্ধি ঝরে পড়ে। আধঘন্টা মত রেখে দিলে ধূপকাঠি সম্পূর্ণভাবে শুকিয়ে যাবে। এরপর আসবে প্যাকেজিং -এর কাজ। কাঠিগুলি শুকিয়ে গেলে আপনি আপনার হিসেব মতো প্যাকেটে ভরতে পারেন। তারপর হিট সিলিং মেশিন দিয়ে মুখ বন্ধ করতে পারেন।

এইভাবে আপনি শুরু করতে পারেন ধূপকাঠি তৈরীর ব্যবসা। পাইকারি বাজারের চাহিদা অনুযায়ী পরবর্তীকালে ধূপকাঠি তৈরীর মেশিন কিনতে পারেন। এই ব্যবসাটি শুরু করতে প্রাথমিকভাবে আপনার গ্রাম পঞ্চায়েত বা পৌরসভা অফিস থেকে ট্রেড লাইসেন্স নিতে হবে।

গন্ধহীন ধূপকাঠি ও সুগন্ধি কেনার ঠিকানা

১) Vagya Lakshmi Dhoop Centre, 15B, Ratan Sarkar Garden Street, Raja Katra, Barabazar, Kolkata-700001
২) Satyam Dhoop Centre, Baroda Thakur Lane, Jogendra Kabiraj Row, Barabazar, Kolkata- 700007
৩) A.R. Perfumery House, 12/2 Radha Bazar Street, Radha Bazar, Kolkata- 700001

আরও পড়ুনঃ
এই ৫ টি ব্যবসার আইডিয়া আপনাকে সফলতা দিতে পারে
১০ হাজার দিয়ে শুরু করুন এই ব্যবসাটি