হাই স্কুলে নেই শিক্ষক, ক্লাস নিচ্ছে গ্রামের স্থানীয় যুবকেরা

হাই স্কুলে নেই শিক্ষক

গত দু’বছর ধরে স্কুলে শিক্ষকের অভাবে সমস্যায় পড়তে হয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ সহ স্কুলের ছাত্র ছাত্রীদের। মোহাম্মদ বাজারের হেরুকা হাজী সোলেমান উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকের অভাবে ক্লাস করাতে পারছিলেন না স্কুল কর্তৃপক্ষ। এবিষয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষ এলাকার কিছু শিক্ষিত যুবকদের ক্লাস করানোর অনুরোধ জানায়। এর ফলে এলাকার ছাত্রছাত্রীদের ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে বেশ কয়েকজন স্থানীয় শিক্ষিত যুবক পঞ্চম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত ক্লাস নিতে শুরু করেছেন।

তারা নিজেদের ফাঁকা সময়ে গ্রামের বিদ্যালয় ক্লাস নেবেন। এর জন্য তাদের কোনরূপ পারিশ্রমিক লাগবেনা। বিনে পয়সায় পড়াবেন তারা। বিদ্যালয়ের তরফে জানা যায়, দু বছর ধরে শিক্ষকের অভাবে সমস্যায় পড়তে হয় স্কুল কর্তৃপক্ষকে। উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে অনুমোদন পাওয়ার পরেও শিক্ষকের অভাবে চালু করা যায়নি একাদশ শ্রেণীর পঠনপাঠন। এই মুহূর্তে বিদ্যালয়ে মাত্র চারজন শিক্ষক। এই কারণে স্কুল চালাতে সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছিল স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে। এর জন্যই মাঝে মধ্যে গ্রামের শিক্ষিত যুবকদের ক্লাস নিতে অনুরোধ করেছিলেন। আর তাদের এই ডাকে এগিয়ে এসেছেন কয়েকজন শিক্ষিত যুবক।

চাকরির খবরঃ রাজ্যে মাধ্যমিক পাশে আশা কর্মী নিয়োগ

গ্ৰামের শিক্ষিত যুবকদের এহনো উদ্যোগে খুশি স্কুল কর্তৃপক্ষ সহ পড়ুয়ারা। পড়ুয়ারা জানায়, “বহুদিন ধরে বিদ্যালয়ের সমস্ত বিষয়ে শিক্ষক না থাকায় ঠিকঠাক ক্লাস পাইনা। দু’মাস ধরে গ্রামের কয়েকজন দাদা বিদ্যালয়ে এসে আমাদের ক্লাস করাচ্ছেন। এতে আমাদেরও খুব ভালো হচ্ছে। আমরা ঠিক করে পড়াশুনা করতে পারছি। দাদাদের এই উদ্যোগকে আমরা ধন্যবাদ জানাই।”