৪৩ হাজার শিক্ষকের কাছে নথি চাইলো প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ, পড়ুন বিস্তারিত প্রতিবেদন

৪৩ হাজার শিক্ষকের কাছে নথি চাইলো প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি মামলায় সিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিল মহামান্য কোলকাতা হাইকোর্ট। এবার সেই তদন্তে নতুন মোড় আসতে চলেছে। প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে যাবতীয় তথ্য তলব করেছে গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই। তাই রাজ্যের প্রাথমিক স্কুলগুলিতে নিযুক্ত শিক্ষকদের নিয়োগ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য চাইল পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ।

নতুন সরকার ২০১১ সালে গঠিত হবার পর, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের পক্ষ থেকে নিয়োগপত্র দেওয়া হয় এই প্রাথমিক শিক্ষকদের। সেই বিষয়ে যাবতীয় নথিপত্র যাচাই করতে চায় সিবিআই। তাই নথিপত্রের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ। যেখানে বলা হয়েছে, কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে ৪২,৯৪৯ জন প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছে সিবিআই। তাই জরুরি ভিত্তিতে এক্সেল শিট -এ ৪২,৯৪৯ জন শিক্ষককে তাঁদের নিয়োগ সংক্রান্ত নথি অতি শীঘ্রই সংসদকে পাঠাতে হবে।

আরও পড়ুনঃ বাংলা বানান জানেন না প্রাইমারি শিক্ষক

পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের নির্দেশিকা অনুযায়ী, বুধবারের মধ্যে সমস্ত প্রয়োজনীয় নথিপত্র সংসদে পাঠাতেই হবে। এর জন্য সংসদ থেকে নির্দিষ্ট ইমেল নম্বর দেওয়া হয়েছে। যাতে করে শিক্ষকরা নথিপত্র পাঠাতে পারেন।

এ বিষয়ে শিক্ষা সংসদের আধিকারিকগণ কিছু বলেননি। কিন্তু শিক্ষক এবং “বঙ্গীয় শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতি” যথেষ্ট মাত্রায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তাদের বক্তব্য, সরকার যদি নিয়োগের সময় স্বচ্ছতা বজায় রাখতো, তাহলে এমনভাবে শিক্ষকদের হেনস্থা হতে হতো না। এ বিষয়ে নেতা মন্ত্রীদের আরোও জোরালো জিজ্ঞাসাবাদের আবেদনও জানিয়েছেন তারা।

চাকরির খবরঃ বাংলা সহায়তা কেন্দ্রে কর্মী নিয়োগ